মাশরুম দিয়ে পোশাক

এবার মাশরুম দিয়ে তৈরি হলো পোশাক!

মাশরুমের চামড়া দিয়েও পোশাক তৈরি হয়, তা কি আগে জানা ছিল? ইংরেজ ফ্যাশন ডিজাইনার স্টেলা ম্যাককার্টনি দীর্ঘদিন গবেষণার পর মাশরুমের চামড়া দিয়ে নতুন পোশাক তৈরি করেছেন।

টেকসই বিলাসবহুল ফ্যাশন আন্দোলনের নেতৃত্বদানকারী হিসেবে স্টেলা ম্যাককার্টনির অনেক খ্যাতি আছে। সম্প্রতি বিখ্যাত এ ফ্যাশন ডিজাইনার বিশ্বের সামনে তুলে ধরলেন মাশরুম থেকে উৎপন্ন চামড়া দিয়ে তৈরি পোশাক।

২০ বছরের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তিনি সবসময় প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে পোশাক এবং বিভিন্ন ফ্যাশনেবল বস্তু তৈরির চেষ্টায় থেকেছেন। কখনো প্রাণীর চামড়া দিয়ে কিছু তৈরির প্রয়াস ঘটাননি তিনি।

এ ফ্যাশন ডিজাইনার এবারই প্রথম মাইলো গার্মেন্টস হিসেবে একটি কালো বাস্টিয়ার এবং ট্রাউজার্স তৈরি করেছেন, তাও আবার মাশরুমের চামড়া দিয়ে। ইনস্টাগ্রামে তিনি পোশাকের ছবি দিয়ে লিখেছেন, ‘এটি ফ্যাশনের ভবিষ্যত’।

এই প্রথম মাইলো গার্মেন্টস নামক একটি ব্র্যান্ড আত্মপ্রকাশ করেছে- ব্ল্যাক বাস্টিয়ার এবং ট্রাউজার্স তৈরি করে। স্টাইলের ক্ষেত্রে এ পোশাক অনবদ্য এবং পরিবেশবান্ধব বলে জানান স্টেলা ম্যাককার্টনি।

জাতিসংঘের দেওয়া তথ্য মতে, বিশ্বের কার্বন নিঃসরণের ১০ শতাংশ এবং বৈশ্বিক বর্জ্য-পানির প্রায় ২০ শতাংশের জন্য দায়ী ফ্যাশন শিল্প। এ সংকটপূর্ণ সময়ের প্রেক্ষাপটে ফ্যাশন ডিজাইনার ও উদ্ভাবকগণ টেকসই ও পরিবেশ-বান্ধব বিকল্প ফ্যাশনের খোঁজে কাজ করছেন। ঠিক এমন সময়ই স্টেলা ম্যাককার্টনি পরিবেশবান্ধব পোশাক নিয়ে হাজির হলেন।

মাশরুমের মাইসেলিয়াম থেকে কৃত্রিম চামড়া তৈরি করা হয়। মাইসেলিয়াম হলো মাশরুমের ছত্রাক ও তন্তুযুক্ত ভূ-গর্ভস্থ কাঠামো। মাশরুমের তন্তুযুক্ত উপাদান প্রক্রিয়াজাত করে চামড়ার মতো অসংখ্য কিছু তৈরি করা সম্ভব। এ নিয়ে অনেকেই এখনো গবেষণা করছেন।

বর্তমানে আমেরিকান বিভিন্ন কোম্পানি যেমন- এডিডাস ও লুলুলেমন তাদের তৈরি জুতা ও হাতব্যাগে ব্যবহৃত চামড়ার জন্য মাশরুম থেকে তৈরি করা কৃত্রিম চামড়া ব্যবহার করে থাকে। এ ছাড়াও লেডিস ব্যাগ, মানি ব্যাগ, ঘড়ির বেল্টও তৈরি হয়েছে মাশরুম থেকে।