তাল

তাল: গুণে ভরা ফল

তাল আমাদের সকলের পরিচিত একটি ফল। ইতিমধ্যে বাজারে পাকা তাল চলে এসেছে। পাকা তালের অপূর্ব সুন্দর ঘ্রাণ আমাদের সকলকেই মোহিত করে থাকে। পাকা তালের রস থেকে নানারকম সুস্বাদু পিঠা তৈরি হয়ে থাকে। তবে শুধু তালের পিঠাই নয়, বরং তালের রস আমাদের জন্য অনেক উপকারী। এতে থাকা নানা রকম খনিজ উপাদান এবং পুষ্টিগুণ আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী। আসুন জেনে নিই তালের পুষ্টিগুণ এবং এর উপকারীতা সম্পর্কে।

পুষ্টিগুণঃ

দেখতে সাধারণ হলেও তাল কিন্তু অনেক পুষ্টিগুণে ভরপুর একটি ফল। প্রোটিন, শর্করা, চর্বি, অ্যামাইনো অ্যাসিডেরও ভালো উৎস তাল। এছাড়াও তালে আছে সোডিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, জিঙ্ক ও আয়রন। দেখা গেছে প্রতি ১০০ গ্রাম তালে বিভিন্ন খনিজ উপাদান ০.৮ গ্রাম, জলীয় অংশ ৭৭.৫ গ্রাম, আঁশ ০.৫ গ্রাম, চর্বি ০.৩ গ্রাম, আমিষ ০.৮ গ্রাম, শর্করা ২০.৭ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৮ মিলিগ্রাম ও খাদ্যশক্তি রয়েছে প্রায় ৮৭ কিলো ক্যালরি।

উপকারিতাঃ

১। ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে তাল অনেক কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। বিশেষ করে এই গরমে ঘামাচির সমস্যায় তালের রস অনেক উপকারী। এছাড়াও তাল আমাদের চুলকানি এবং চিকেন পক্স নিরাময়ে কাজ করে। একই সাথে তালের রস খেলে আমাদের ত্বকের ব্রণ এবং অ্যালার্জি জনিত সমস্যা কমে যায় এবং ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে।
২। তালে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকায় এটি আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে থাকে। একই সাথে এটি ক্যান্সারের মত মরণ ব্যাধি রোগ থেকে আমাদের বাঁচায়। তাল আমাদের স্মৃতিশক্তি ভালো রাখে এবং শারীরিক স্বাস্থ্য রক্ষা করে থাকে।
৩। তালে প্রচুর পরিমাণে ডায়েটারি ফাইবার থাকায় এটি আমাদের কোষ্ঠ্যকাঠিন্যের মত অস্বস্তিকর সমস্যা কমিয়ে থাকে। একই সাথে তাল আমাদের হজম প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করে এবং হজমে সহায়ক বিভিন্ন অ্যাসিড ক্ষরণে সাহায্য করে । এর এতে আমাদের মল নরম হয় এবং সহজেই শরীর থেকে বেড়িয়ে যায়।
৪। তালে ক্যালসিয়াম থাকায় এটি আমাদের দাঁতের জন্য অনেক ভালো । এটি আমাদের দাঁতের এনামেল ভালো রাখে এবং দাঁতের ক্ষয় রোধ করে। একই সাথে তাল আমাদের আমাদের হাড়কে শক্তিশালী করে তোলে।
৫। পেটের জ্বালাপোড়া দূর করতে ভীষণ কার্যকরী পাকা তালের রস। গরমে হাইট্রেড থাকতে ভালো কাজ করে তাল। এছাড়াও এসিডিটির সমস্যা দূর করতে তালের রস খুবই উপকারী।