চশমা

কখন বুঝবেন আপনার চশমা বদলাতে হবে

অনেকেই দীর্ঘদিন একই চশমা ব্যবহার করে থাকেন। ফলে চোখের নানা সমস্যা হয়। অনেক সময় চোখের পাওয়ার খুব অল্প পরিমাণে বদলায়, বা চোখে বয়সের সঙ্গে সঙ্গে নানা ধরনের ছোটখাটো বদল আসে। সেগুলো সহজে টের পাওয়া যায় না।

কিন্তু দীর্ঘদিন সেগুলো খেয়াল না করলে চোখের ক্ষতি হয়। নির্দিষ্ট কিছু লক্ষণ দেখে বোঝা যায় চশমা বদলানোর সময় হয়েছে।

ক্লান্ত চোখ: ঘুম থেকে উঠেও কোনো কিছুর দিকে তাকাতে ইচ্ছা করছে না। মন দিয়ে কোনো লেখা পড়তে পারছেন না। চোখের পাওয়ার বদলালে এমন হতে পারে। এমনটা হলে চশমার পাওয়ার বদলাতে পারেন। দরকার হলে নতুন চশমা নিন। যদিও চশমা চোখেই আছে, তার পরও দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে গেলে চশমার পাওয়ার বদলাতে হবে।

মাথায় যন্ত্রণা: মাঝে মাঝে মাথা ব্যথা আর নিয়মিত মাথার যন্ত্রণা কিন্তু এক নয়। যাদের প্রায়ই মাথা ব্যথা হয়, তাদের বিষয়টি অবহেলা করা উচিত নয়। ঘন ঘন মাথা ব্যথার প্রধান কারণ হতে পারে চোখের পাওয়ার বদলানো। এমন পরিস্থিতিতে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া যেতে পারে। ডাক্তারের কাছে গিয়ে নতুন করে চোখের পাওয়ার মেপে দেখুন। প্রয়োজনে চশমা বদলান।

ঝাপসা দৃষ্টি: অনেক সময় চোখের সমস্যায় দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে যায়। যদিও চশমা চোখেই আছে। কিন্তু মাঝে মাঝেই দৃষ্টি ঝাপসা হতে পরে। এমন অবস্থায় চশমা বদলাতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

শিশুর চশমা: বড়দের তুলনায় বাড়ন্ত শিশুদের চোখের পাওয়ার দ্রুত পরিবর্তন হয়। তাই ঘন ঘন চোখ পরীক্ষা করিয়ে নেওয়া ভালো। এ ছাড়া বাড়ন্ত শিশুদের দৃষ্টির সম্পূর্ণ বিকাশ হবে না।

ডাবল ভিশন: মাঝে মাঝে অনেকেই একটি বস্তুকে দুটি করে দেখেন। চোখের পাওয়ার বাড়লে এমন ‘ডাবল ভিশন’-এর সমস্যা দেখা দিতে পারে। ঘন ঘন এমন সমস্যা দেখা দিলে দ্রুত চক্ষু বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে দ্রুত চশমার পাওয়া বদলে নিন।

পরামর্শ দিয়েছেন: ডা. তাসরুবা শাহনাজ, সিনিয়র কনসালট্যান্ট, বসুন্ধরা আই হসপিটাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট, ঢাকা