উদ্ভিদ

বড় গুণের বরই

বরই

বৎসরের সেপ্টেম্বরে – অক্টোবরে মৌসুমে গাছে ফুল আসে। ফল ধরে শীতে। ফল গোলাকার, ছোট থেকে মাঝারি। ফল আকারে ছোট, কমবেশী ২.৫ সেন্টিমিটার। ফল পাকলে রঙ হলুদ থেকে লাল বর্ণ হয়। কাচা ও পাকা উভয় পদের বরই খাওয়া হয়। স্বাদ টক ও কাঁচামিঠা জাতীয়। বরই রোদে শুকিয়ে সংরক্ষণ করা যায়। পাকা …

বিস্তারিত

আখের রসের যতো উপকারিতা

আখ

আখ আমাদের সকলের পরিচিত এবং এটি চিবিয়ে খেতে আমরা অনেকে পছন্দ করে থাকি। অনেকেই একে ইক্ষু বা কুসার নামে ডেকে থাকেন। আখ ঘাস জাতীয় পরিবারের একটি গাছ । এর উৎপত্তি স্থল গায়েনাতে হলেও পরবর্তিতে এর চাষ সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। আমাদের দেশেও প্রচুর আখ চাষ হয়ে থাকে। এটি আমাদের দেশের …

বিস্তারিত

মটরশুঁটির পুষ্টিগুণ

মটরশুঁটি হলো লেগিউম জাতীয় উদ্ভিদ এর গোলাকার বীজ। প্রতিটি মটরশুঁটির মধ্যে বেশ কয়েকটি বীজ থাকে। যদিও এটি এক প্রকারের ফল, এটি মূলত সবজি হিসাবে রান্নায় ব্যবহৃত হয়। একটি একবর্ষজীবী উদ্ভিদ। এটি বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে শীত মৌসুমে চাষ করা হয়ে থাকে। গড়ে প্রতিটি মটরশুঁটির ওজন ০.১ হতে ০.৩৬ গ্রাম। মটরশুটির বীজকে …

বিস্তারিত

তাল: গুণে ভরা ফল

তাল

তাল আমাদের সকলের পরিচিত একটি ফল। ইতিমধ্যে বাজারে পাকা তাল চলে এসেছে। পাকা তালের অপূর্ব সুন্দর ঘ্রাণ আমাদের সকলকেই মোহিত করে থাকে। পাকা তালের রস থেকে নানারকম সুস্বাদু পিঠা তৈরি হয়ে থাকে। তবে শুধু তালের পিঠাই নয়, বরং তালের রস আমাদের জন্য অনেক উপকারী। এতে থাকা নানা রকম খনিজ উপাদান …

বিস্তারিত

চালতার নানাবিধ উপকারিতা

চালতা

চালতা এক রকমের ভারতবর্ষীয় উদ্ভিদ। চালতার ফল খুব আদরণীয় নয়। এই ফল দিয়ে চাটনি ও আচার তৈরি হয়। এটি স্থানবিশেষে চালিতা, চাইলতে ইত্যাদি নামেও অভিহিত। এর ইংরেজী নাম Elephant Apple। গাছটি দেখতে সুন্দর বলে শোভাবর্ধক তরু হিসাবেও কখনো কখনো উদ্যানে লাগানো হয়ে থাকে। আজকের লেখাতে আমরা জানবো চালতার ঔষুধি গুণাবলী …

বিস্তারিত

অশ্বগন্ধার উপকারিতা কী কী?

অশ্বগন্ধা

অশ্বগন্ধা আমাদের সবার পরিচিত একটি ভেষজ উদ্ভিদ। ইংরেজিতে একে বলা হয় Rennet এবং এর বৈজ্ঞানিক নাম Withania Xomnifera Dunal । অনেকে একে বাজিকরি বা বলদা নামেও ডেকে থাকেন। এই গাছ বাংলাদেশসহ ভারত, পাকিস্তান এবং শ্রীলংকায় পাওয়া যায়।গাছটি সাধারণত ৩ থেকে ৪ ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট এবং শাখাবহুল হয়ে থাকে । এতে …

বিস্তারিত

সফেদার বিস্ময়কর স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য উপকারিতা

সফেদা

সফেদা ফল বেশ মিষ্টি। কাচা ফল শক্ত এবং ‘স্যাপোনিন’ সমৃদ্ধ। সফেদা গাছ উষ্ণ ও ক্রান্তীয় অঞ্চল ছাড়া বাঁচে না। শীতল আবহাওয়ায় সহজেই মরে যায়। সফেদা গাছে ফল আসতে ৫-৮ বছর লাগে। এতে বছরে দুইবার ফল আসতে পারে যদিও গাছে সারা বছর কিছু কিছু ফুল থাকে। অত্যন্ত সুস্বাদু ও পুষ্টিকর একটি …

বিস্তারিত

উপকারী বৃক্ষ সর্পগন্ধা

সর্পগন্ধা

সর্পগন্ধা আমাদের অনেকের পরিচিত একটি ভেষজ উদ্ভিদ। এটি ঔষধি গুনের জন্য বিখ্যাত। অনেকেই একে চন্দ্রা নামে ডেকে থাকে । এর বৈজ্ঞানিক নাম Rauwolfia serpentina। এই উদ্ভিদটি সব জায়গায় জন্মে না। আমাদের দেশের খাসিয়া পাহাড়ের পাদদেশ, তামাবিলের জঙ্গল এবং রাঙামাটি, বান্দরবান এলাকায় কিছু কিছু দেখা যায়।এই গাছটি সাধারণত ঝোপ আকারের হয়ে …

বিস্তারিত

বাঙ্গির স্বাস্থ্য উপকারিতা

বাঙ্গি

বাঙ্গি বা ফ্রুটি আমাদের দেশীয় একটি ফল। বাঙ্গির ইংরেজি নাম Muskmelon এবং বৈজ্ঞানিক নাম Cucumis melo। গ্রীষ্মকালীন এই ফলটি নজর কারে তার অপূর্ব সুন্দর ঘ্রাণ এবং স্বাদের জন্য। এটি আমাদের দেশে প্রচুর জন্মে। তাই খুব সহজেই পাওয়া যায়। কাঁচা অবস্থায় হালকা সবুজ এবং পেঁকে গেলে হলুদ রঙের হয়ে থাকে। বেশিরভাগ …

বিস্তারিত

যাদুকরী ফল হরিতকীর আশ্চর্য গুণাগুণ

হরিতকী

হরিতকী আমাদের সকলের পরিচিত একটি ভেষজ উদ্ভিদ। শত শত বছর ধরে এর ঔষুধি গুণের কথা বলা হয়ে আসছে। প্রাচীন অনেক আয়ূর্বেদ শাস্ত্রে এর গূনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। হরিতকী গাছ সাধারণত ৭০ থেকে ৮০ ফুট উচুঁ হয়ে থাকে এবং এর পাতা ৩ থেকে ৪ ইঞ্চি লম্বা হয়ে থাকে। দেখতে অনেকটা …

বিস্তারিত