শাহরুখ-আরিয়ান

মূল টার্গেট শাহরুখ, নেপথ্যে বিজেপি: মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী

মাদক মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন শাহরুখ খানপুত্র আরিয়ান খান। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের (এনসিবি) হেফাজতে রাখা হয়েছে তাকে। বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) আবারও আদালতে তোলা হবে আরিয়ানকে। এমন অবস্থার মধ্যেই চাঞ্চল্যকর দাবি করলেন এনসিপি-র মুখপাত্র তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিক। তিনি জানান, এ ঘটনার পিছনে বিজেপির হাত রয়েছে। তিনি আরও দাবি করেন, আরিয়ান নয় মূল টার্গেট শাহরুখ।

নবাব জানান, ‘পুরো ঘটনা সাজানো’। তার দাবি, মহারাষ্ট্র সরকারকে প্যাঁচে ফেলতে মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরকে দিয়ে এই কাজ করাচ্ছে বিজেপি। এর আগে কংগ্রেসের পক্ষ থেকেও দাবি করা হয়েছিল, গুজরাটের মুন্দ্রা বন্দরে আটক ৩০০০ কিলোগ্রাম হেরোইন উদ্ধারের মামলা থেকে দেশবাসীর নজর ঘুরাতেই মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রমোদতরী অভিযান। এখানেও পরোক্ষভাবে বিজেপির দিকে টার্গেট করা হয়েছিল।

নবাবের দাবি, পরবর্তী টার্গেট শাহরুখ হবে বলে সংবাদকর্মীদের কাছে এক মাসে আগে থেকেই খবর ছিল। সঙ্গে শাহরুখপুত্রকে আটকের পর তার সঙ্গে সেলফি তোলা অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির প্রসঙ্গেও কথা বলেন তিনি।

জানা গেছে, শাহরুখপুত্রের সঙ্গে সেলফি তোলা ওই ব্যক্তির নাম মণীশ ভানুশালী। যদিও এনসিবি জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি তাদের কেউ নন। তাই প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কে ওই ব্যক্তি? সে এনসিবির অভিযানের সময় ওই প্রমোদতরীতে কী করছিল? নবাবের দাবি, ওই ব্যক্তি বিজেপির সঙ্গে যুক্ত। অমিত শাহ ও নরেন্দ্র মোদির সঙ্গেও তার ছবি রয়েছে। যদিও নবাবের এই দাবি খারিজ করে দিয়েছেন মণীশ ভানুশালী। তিনি জানিয়েছেন, বিজেপির সঙ্গে তার কোনও ধরনের সম্পর্ক নেই!