ভাইরাস

ভারতে এবার জিকা ভাইরাস

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ কেবল সামাল দিয়ে উঠছে ভারত। আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ধীরে ধীরে কমছে দেশটিতে। এ পরিস্থিতিতে ভারত যখন করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে তখন এলো আরেক দুঃসংবাদ। মশাবাহিত জিকা ভাইরাসের খোঁজ পাওয়া গেল কেরালায় এক নারীর শরীরে। আরও ১৩ জনের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হচ্ছে।

কেরালার তিরুবন্তপুরমের এক গর্ভবতী নারীর শরীরে পাওয়া গেছে এই জিকা ভাইরাস। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। প্রচণ্ড জ্বর, মাথাব্যথা, গায়ে লাল দাগ নিয়ে কয়েকদিন আগে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল এবং ৭ জুলাই সুস্থ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। ভারতের বাইরে কোথাও যাননি ওই নারী। সপ্তাহ খানেক আগে তার মায়ের শরীরেও একই উপসর্গ দেখা দেয়। ইতোমধ্যে সতর্কতা জারি করা হয়েছে কেরালার ওই জেলায়।

মশা

জিকা মশার দ্বারা ছড়িয়ে পড়া একটি ভাইরাল সংক্রমণ। এডিস মশা থেকে ছড়িয়ে পরে এই ভাইরাস। উগান্ডায় বানরদের মধ্যে প্রথম চিহ্নিত হয় জিকা। পাঁচ বছর পরে জিকা মানুষের মধ্যে সনাক্ত করা হয়। ২০০৭ সালে জিকা সংক্রমণ মারাত্মক আকার নেয়। ২০১৫ সালেও ব্রাজিল বিপর্যস্ত হয়েছিল এ ভাইরাসের সংক্রমণে।

গর্ভবতীরা এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে সন্তান অনুন্নত মস্তিষ্ক নিয়ে জন্মগ্রহণ করতে পারে। মূলত গর্ভবতীদের জন্য মারাত্মক আকার নিয়ে ফেলে এই জিকা ভাইরাস। ২০১৮ সালে ভারতে জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিল ৮০ জন।

শেয়ার করুন: