অ্যাপল সিডার ভিনেগার

চুলের যত্নে অ্যাপল সিডার ভিনেগার

বিউটিশিয়ান শারমিন কোচি: অ্যাপেল সিডার ভিনেগার একটি শক্তিশালী প্রাকৃতিক উপাদান। এতে রয়েছে অ্যাসিটিক অ্যাসিড, সাইট্রিক অ্যাসিড ও ম্যালিক অ্যাসিড।

এ ছাড়া রয়েছে ভিটামিন, এনজাইম, মিনারেল সল্ট এবং অ্যামিনো অ্যাসিড, যা স্বাস্থ্য রক্ষার পাশাপাশি ত্বক ও চুলের যত্নে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করতে পারেন। আসুন জেনে নিই চুলে আপেল সিডার ব্যবহারের উপকারিতা-

১. চুলের যত্নে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করতে পারেন। শ্যাম্পুর সঙ্গে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে লাগালে, তা মাথার ত্বক পরিষ্কার করে এবং চুলের বৃদ্ধি হয়। শ্যাম্পু ও হাফ চা চামচ অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ভালোভাবে মেশান। এই শ্যাম্পুটি মাথার ত্বক ও চুলে ভালোভাবে লাগান। ৫ মিনিট পর চুল ধুয়ে ফেলুন।

২. একটি পাত্রে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার নিয়ে নিন। এর পর একটি তুলোর বল তাতে ভিজিয়ে মাথার তালুতে ম্যাসাজ করে লাগান। এবার একটি টাওয়েল গরমপানিতে ভিজিয়ে নিন। এই টাওয়েল দিয়ে মাথা পেঁচিয়ে রাখুন। এক ঘণ্টা পর কুসুম গরমপানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুবার ব্যবহার করতে পারেন।
৩. এক অংশ অ্যাপেল সিডার ভিনেগার এবং এক অংশ পানি একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। চুল শ্যাম্পু করার পর এই মিশ্রণ দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করলে কন্ডিশনার ব্যবহার করার প্রয়োজন নেই।
৪. চুল ঘন করতে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার বেশ কার্যকর। এটি মাথার তালুতে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে, যা চুলের গোড়া মজবুত করে নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।
৫. চুলের আগা ফাটা রোধ করে আপেল সিডার ভিনেগার। শ্যাম্পু করার পর এটি চুলে ব্যবহার করুন। এর পর কয়েক মিনিট পর পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে দুবার ব্যবহার করলে চুলের আগা ফাটা দূর হবে।

লেখক: বিন্দিয়া বিউটি পার্লারের স্বত্বাধিকারী ও বিউটি কনসালট্যান্ট।