দাঁতের মাড়ি

দাঁতের মাড়ি ফোলার সমস্যা? দূর করুন এভাবে

দাঁতের সমস্যার মতোই মাড়ির সমস্যাও বেশ অস্বস্তিকর ও কষ্টদায়ক। মাড়ি ফোলার সমস্যা হলে খেতে যেমন সমস্যা হয়, তেমনি একটু খোচা বা চাপ লাগলেও মাড়ি থেকে রক্ত বের হতে পারে। মাড়ির সমস্যা বিভিন্ন কারণে হতে পারে। অপুষ্টি, মুখের সংক্রমণ, দাঁতের যত্ন না নেয়া ও ভালো করে মুখের ভেতর নিয়মিত পরিষ্কার না করা। এ ধরনের সমস্যায় ঘরোয়া কিছু উপায় খুব উপকারী। চলুন জেনে নেয়া যাক।

আদা: মুখের যেকোনো সংক্রমণে আদা সেই প্রাচীনকাল থেকে ঔষধি হিসেবে চলে আসছে। শুধু সংক্রমণ নষ্ট করাই নয়, মুখে নতুন করে ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণও অনেকটা রোধ করে।

লবণপানি: লবণপানি দিয়ে কুলকুচি করলে মুখের সংক্রমণ বা জীবাণু নষ্ট হয়। ফলে অনেকটা আরাম মেলে। সংক্রমণ দূর হয় বলে মাড়ির ফোলাভাবটাও সঙ্গে সঙ্গে অনেকটাই কমে যায়।

লবঙ্গ: দাঁতের সমস্যায় লবঙ্গ এককথায় সবচেয়ে উপকারী ঘরোয়া টোটকা। দাঁতের ব্যথা হোক বা মাড়ি ফোলা সমস্যায় লবঙ্গ দ্রুত মুক্তি দিতে সাহায্য করে।

ক্যাস্টর অয়েল: ক্যাস্টর অয়েল শুধু চুলের জন্যই ভালো নয়, দাঁতের জন্যও যথেষ্ট উপকারী। এই তেল যদি আক্রান্ত স্থানে লাগানো যায়, তাহলে অবশ্যই উপকার পাওয়া যায়।

সরিষার তেল: সরিষার তেলে যন্ত্রণা উপশমকারী একাধিক দ্রব্য রয়েছে। তেলের সঙ্গে এক চিমটি লবণ মিশিয়ে মাড়িতে মালিশ করলে উপকার পাওয়া যাবে।

লেবুপানি: সকালে দাঁত মাজার আগে লেবুর টক পানি দিয়ে মুখ ভালো করে কুলকুচি করলে মাড়ির সমস্যা অনেকাংশে রোধ করা যায়।

টি ট্রি অয়েল: মাড়ির সমস্যায় উপকারী উপকরণ হলো টি ট্রি অয়েল। এ তেল দিয়ে দাঁতের গোড়ায় মালিশ করলে ফোলা মাড়ির অস্বস্তির হাত থেকে অনেকটা নিস্তার পাওয়া যায়।