এটিএম শামসুজ্জামানকে দেখতে হাসপাতালে ওবায়দুল কাদের

বর্ষীয়ান অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান দীর্ঘ দুই মাস ধরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন হাসপাতালে। গুণী এই অভিনেতাকে দেখতে মঙ্গলবার (২ জুলাই) সকাল সোয়া ১১টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে গেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন বিএসএমএমইউ-এর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কণক কান্তি বড়ুয়া, হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. এ কে মাহবুবুল হক, আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া। এসময় বিএসএমএমইউ কেবিন ব্লকে চিকিৎসাধীন এটিএম শামসুজ্জামানের শয্যাপাশে উপস্থিত হয়ে অভিনেতা শামসুজ্জামানের চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন তিনি।

শামসুজ্জামানের শারীরিক অবস্থার বিষয়ে কাদের সাংবাদিকদের বলেন, দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসাধীন এটিএম শামসুজ্জামান সাহেব একজন দেশবরেণ্য অভিনেতা। প্রধানমন্ত্রী তার চিকিৎসার সকল দায় দায়িত্ব নিয়েছেন। তার খোঁজ খবর নিতে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই এসেছি। হাসপাতালের চিকিৎসক বলেছেন, আগের চেয়ে শামসুজ্জামান সাহেবের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে এবং তার অবস্থা এখন উন্নতির দিকে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ এপ্রিল থেকে রাজধানীর গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন বরেণ্য ও শক্তিমান অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ১৫ জুন তাকে এ হাসপাতাল থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে নেয়া হয়। গত ১৩ মে আনুষ্ঠানিকভাবে এটিএম শামসুজ্জামানের চিকিৎসার সব ধরনের দায়িত্ব নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই অভিনেতার চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ১০ লাখ টাকার চেক দেওয়া হয়

উল্লেখ্য, অভিনয়ে পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন এটিএম শামসুজ্জামান। শিল্পকলায় অবদানের জন্য ২০১৫ সালে পান রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদক। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি একজন প্রযোজক, চিত্রনাট্যকার এবং নির্মাতাও।