ভারতের নির্বাচন নিয়ে যা বললেন মোশাররফ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ভারতের জনগণ তাদের পছন্দের দল ও প্রার্থীকে ভোট দিতে পেরেছে। তাদের পছন্দমতো দলকে ক্ষমতায় এনেছে, যা বাংলাদেশে পারেনি।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার, নির্বাচন কমিশন ও সব পর্যায়ের প্রশাসকদের ভারত থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত। বিশেষ করে আওয়ামী লীগ ও সরকারকে শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে।’

শনিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম মৃত্যুবার্ষিকী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং সুস্থতা কামনায় এই দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী নাগরিক দল।

বাংলাদেশে গণতন্ত্র নেই দাবি করে মোশাররফ হোসেন বলেন, প্রতিবেশী দেশ ভারত এই নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের গণতন্ত্র কাকে বলে- তা আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। ভারতের জনগণ ও সে দেশের নির্বাচন কমিশনকে অভিনন্দনও জানান তিনি।

‘গণতন্ত্র উদ্ধারে’ খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার জন্য বিএনপি নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান মোশাররফ হোসেন।

বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনকে ঢেলে সাজানোর প্রক্রিয়া চলছে জানিয়ে দলের এই নীতি নির্ধারক বলেন, আমাদের সব ক্ষেত্রে গণতন্ত্রায়নের ব্যবস্থা করতে হবে। আমাদের দলের নেতাকর্মীরা নেতা নির্বাচিত করলে নেতাকর্মীদের প্রতি যে দায়িত্ববোধ থাকে, ওপর থেকে চাপিয়ে দিলে সেটা থাকে না। গতকাল (শুক্রবার)আমাদের সহযোগী সংগঠন ড্যাবের কমিটি হয়েছে সরাসরি ভোটের মাধ্যমে। আমরা আশা করি, আমাদের দল ও অঙ্গসংগঠনে এইভাবে নির্বাচনের মাধ্যমে নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করে তারপর জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে।

সৈয়দ মো. ওমর ফারুকের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেইন প্রমুখ।