ইসলাম

ইমাম শাফেঈ (রহঃ) -র জীবনী

ইমাম শাফেঈ (রহ:)-এর পুরো নাম মোহাম্মদ ইবনে ইদ্রিস ইবনে আব্বাস ইবনে উসমান ইবনে শাফেঈ। তাঁর পূর্বপুরুষদের মধ্যে ৮ম প্রপিতামহ হাশেম ইবনে আব্দিল মোত্তালেবের চাচা হাশেম ছিলেন রাসূলুল্লাহ (দ:)-এর পূর্বপুরুষ। ইমাম সাহেবের ৫ম প্রপিতামহ সায়িব বদরের যুদ্ধে শত্রু পক্ষে অবস্থান করলেও পরবর্তীকালে তিনি ও তাঁর ছেলে শাফেঈ সাহাবী হবার মর্যাদা লাভ …

আরও পড়ুনঃ

সর্বপ্রথম ফাতাওয়া প্রদানকারী কে?

জিজ্ঞাসাঃ সর্বপ্রথম ফাতাওয়া প্রদানকারী কে? জবাবঃ ফাতাওয়ার উৎপত্তি হয় মহান রাব্বুল ‘আলামীন থেকে। মূল ফাতাওয়া দাতা হলেন স্বয়ং আল্লাহ রাব্বুল ‘আলামীন। কুরআনে মাজীদে এ সম্পর্কে মহান স্রষ্টা ঘোষণা করেছেন قل الله يفتيكم في الكلا لة বলুন, (হে মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আল্লাহ তা‘আলা তোমাদেরকে কালালা (যার কোন সন্তান-সন্ততি ও …

আরও পড়ুনঃ

যে মসজিদে নামাজ আদায় করেছেন ৭০ জন নবী

হজের আনুষ্ঠানিকতার অন্যতম অংশ হলো- শয়তানের প্রতীকী স্তম্ভে কঙ্কর নিক্ষেপ করা। এই কঙ্কর নিক্ষেপের স্থানের খুব কাছে ঐতিহাসিক ‘মসজিদে খায়েফ’ অবস্থিত। এই মসজিদে ৭০ জন নবী নামাজ আদায় করেছেন। সওর পাহাড়ের বিপরীত দিকের পাহাড়ের অদূরে প্রতিষ্ঠিত এই মসজিদের আলোচনা বেশ গুরুত্বের সঙ্গে স্থান পেয়েছে। বিশাল মসজিদটি কঙ্কর নিক্ষেপ করতে আসা …

আরও পড়ুনঃ

কোন নবী কত বছর বেঁচে ছিলেন?

মূলত হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর আগের নবী এবং তাদের উম্মতরা বেশি দিন বাঁচত। ফলে তারা মহান আল্লাহ তায়ালার ইবাদত করার সময় বেশি পেত। পরে আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে উম্মতদের জন্য ফরিয়াদ করলে আল্লাহ তায়ালা লাইলাতুল কদরের রাত কে হাজার মাসের চেয়েও শ্রেষ্ঠ বলে ঘোষণা দিয়েছেন। …

আরও পড়ুনঃ

মহানবী (সাঃ) -র জুব্বা পেয়েছেন যে দরবেশ

আহমাদ উল্লাহঃ কেনান দেশে বাস করতেন তিনি। বয়েচলা ছোট্ট পাথুরে নদী। তার পাশ ঘেঁষে ঘন জঙ্গল। এখানেই দিনভর, রাতভর মাবুদের নাম জব করেন। কখনও সিজদায় কখনও মোনাজাতে মাবুদের স্মরণে বুক ভাসান। জমিনে মা, ওপরে আল্লাহকে সঙ্গে রেখে কাটে তার জীবন। কাজের জন্য বেরোন একটু-আধটু। উট চড়িয়ে দুপয়সা কামাই হলে কাজ …

আরও পড়ুনঃ

মুক্তিযুদ্ধ ও ইসলাম

মুক্তিযুদ্ধ ও ইসলাম

বাঙালি জাতির হাজার বছরের ইতিহাসে একাত্তরের স্বাধীনতা একটি মহান অর্জন। স্বাধীনতার জন্য তারা কালে কালে যুদ্ধ ও সংগ্রাম করলেও ১৯৭১ সালের আগে স্বদেশ শাসনের উল্লেখযোগ্য কোনো সুযোগ বাঙালির হয়ে ওঠেনি। আর বাঙালি মুসলমানের জন্য একাত্তরের স্বাধীনতা ছিল আরো বেশি তাৎপর্যময়। কেননা ১৯৪৭ সালের আগে এক দল ‘তথাকথিত’ বাঙালি ‘ইসলাম ও …

আরও পড়ুনঃ