বাপ্পী রাজ

মুনিয়ার প্রেম ছিল অভিনেতা ‘বাপ্পীর’ সাথে

রাজধানীর গুলশানের একটি অভিজাত ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়া নামের তরুণীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় একের পর এক নতুন তথ্য সামনে আসছে।

২০১৭ সালে অভিনেতা বাপ্পী রাজের সঙ্গে পরিচয় হয় মুনিয়ার। তাদের মধ্যে দুই বছর প্রেম ছিল। এরপর হুট করেই যেন হারিয়ে যান মুনিয়া। বিয়ে করেন এক শিল্পপতিকে। মুনিয়াকে নিয়ে এ তথ্য দিলেন তার সাবেক প্রেমিক অভিনেতা বাপ্পী রাজ।

মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে বাপ্পী রাজ বলেন, তার সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক ছিল। আমি মন থেকে ওকে পছন্দ করতাম। এই বিষয়টি আমার পুরো পরিবার জানত। সর্ম্পকের মাঝে হঠাৎ গ্যাপ হয়ে গেল। তারপর মুনিয়া কোথায় যেন হারিয়ে গেল।

বাপ্পী রাজ আরও বলেন, গত বছর আমি খুলনাতে ছিলাম। এখনও খুলনাতেই আছি। তখন সে আমাকে বলেছিল, আমরা বিয়ে করেছি। এরপর বেশ কয়েকদিন আমাদের কথা হয়েছিল, ও সেখান থেকে বেড়িয়ে আসতে চাইছিল। তারপর আবার রাগ করে ব্লক করে দেয়।

সম্পর্কের ব্যাপারে জানতে চাইলে বাপ্পী বলেন, ২০১৭-১৮ সালে, আমাদের দুই বছর সম্পর্ক ছিল। আসলে তো লুকোচুরি লুকোচুরিভাবেই আমার-ওর বিষয়গুলো শেয়ার করত। ওর বোনের (নুসরাত) সঙ্গেও ফেসবুকে আমার কথা হয়েছে। আগের আইডিটি এখন আর নাই।

এ অভিনেতা বলেন, ও বিড়াল পছন্দ করত, আমিও করতাম। এভাবেই আস্তে আস্তে আমাদের গভীর সম্পর্ক হয়ে গেছিল। এরই মধ্যে হঠাৎ না বলে কোথায় যেন হারিয়ে গেল। না পাওয়ার বিষয়টি সামনে চলে আসল। আমি জাস্ট ভুলেই গেছিলাম ওকে। তারপর গত বছর মার্চের দিকে ওর সঙ্গে আমার আবার কথা হয়েছিল।

বাপ্পী রাজ বলেন, মুনিয়া দেখতে অনেক সুন্দর ছিল। আমি মন থেকে ওকে চেয়েছিলাম। কিন্তু আস্তে আস্তে জানতে পারলাম, ওর অনেক ঝামেলা আছে। আমি সেসব ঝামেলায় জড়াতে চাইনি বলে সরে এসেছিলাম।

অভিনেতা বাপ্পী রাজের আগে ঢাকাই সিনেমার এক নায়কের সঙ্গে প্রেম ছিল মুনিয়ার। সে সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর বাপ্পী রাজের সঙ্গে পরিচয় হয় মুনিয়ার। সেখান থেকে মুনিয়ার প্রতি ভালোলাগা তৈরি হয় বাপ্পী রাজের।