গান্ধীর ভাস্কর্য

যুক্তরাষ্ট্রে ভাঙ্গা হলো গান্ধীর ভাস্কর্য, ভারতের নিন্দা

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালির্ফোনিয়ায় মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্য ভাঙচুর করা হয়েছে। দেশটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে দুষ্কৃতকারীরা ভাস্কর্যটি ভাংচুর করেছে। এ ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। এদিকে ভারতের পক্ষ থেকে এমন ঘটনার নিন্দা জানানো হয়েছে।

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, ২০১৬ সালে এ ভাস্কর্যটি উপহার দিয়েছিল ভারত। কিছু দুষ্কৃতকারী এটি ভেঙ্গে ফেলে।

মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, ভারত সরকার বিদ্বেষমূলক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে। এটি ন্যায় ও শান্তির প্রতীকের বিরুদ্ধে জঘন্য কাজ।

সম্প্রতি ক্যালিফোর্নিয়ার ডেভিস শহরের সেন্ট্রাল পার্কে স্থাপিত ২৯৪ গ্রাম ওজনের ৬ ফুট উচ্চতাবিশিষ্ট ব্রোঞ্জের ভাস্কর্যটি ভেঙে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা। স্থানীয় সিটি কাউন্সিল চার বছর আগে এটি সেন্ট্রাল পার্কে স্থাপনের ব্যবস্থা করে। সেই সময়ে ভারতবিরোধী সংগঠন ‘অর্গানাইজেশন ফর মাইনোরিটিস ইন ইন্ডিয়া’ (ওএফএমআই) এর ব্যাপক বিরোধিতা করে। যদিও সেই বিরোধকে কোনোভাবে আমলে নেয়নি স্থানীয় প্রশাসন। তারপর থেকেই ওএফএমআই ভাস্কর্যটি সরানোর দাবিতে অনড় ছিল।

পুলিশের বরাত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গত বুধবার (২৭ জানুয়ারি) ভোরে সেন্ট্রাল পার্কের এক কর্মী প্রথমে মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্যটি মাটিতে পড়ে থাকতে দেখেন। গোড়ালি থেকে শুরু করে এর মুখের এক অংশও ভেঙে ফেলা হয়েছে।

স্থানীয় পুলিশের উপ প্রধান পল দরোশভ বলেছেন, ‘মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্যটি ডেভিসের একটি অংশের মানুষের সাংস্কৃতিক আদর্শ। আমরা ঘটনাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করছি।’ সূত্র: এনডিটিভি ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস