পুলিশ

বিশেষ ভাতার জন্য প্রতিবছর ৩৫৬ কোটি টাকা চায় পুলিশ

কর্মোদ্দীপনা বাড়াতে সব সদস্যদের বছরে একবার এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ বিশেষ ভাতা দিতে ৩৫৫ কোটি ৮৫ লাখ ৬৬ হাজার টাকা চায় পুলিশ। পুলিশের প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১২ নভেম্বর এই অর্থ চেয়ে অর্থ বিভাগের সচিবের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ।

গত ১৪ অক্টোবর পুলিশ অধিদফতর থেকে পাঠানো এ সংক্রান্ত প্রস্তাবের কথা জানিয়ে জননিরাপত্তা বিভাগের চিঠিতে বলা হয়, পুলিশ সপ্তাহ-২০২০ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পুলিশ সদস্যদের কর্মোদ্দীপনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী সব পুলিশ সদস্যদের জন্য এক মাসের বেতনের সমপরিমাণ অর্থ প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে পুলিশ অধিদফতরে পাঠানো হয় জানিয়ে চিঠিতে বলা হয়, এই পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ অধিদফতর বাংলাদেশ পুলিশে কর্মরত সব সদস্যদের প্রতি বছর এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ ‘বাৎসরিক বিশেষ ভাতাসহ শ্রান্তি বিনোদন ছুটি’ প্রদানের জন্য প্রস্তাব পাঠায়।

চিঠিতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ পুলিশে কর্মরত সব সদস্যদের বছরে একবার এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ দিতে হলে সম্ভাব্য অতিরিক্ত ৩৫৫ কোটি ৮৫ লাখ ৬৬ হাজার টাকা প্রয়োজন হবে।

এমতাবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুসরণ করে পুলিশ সদস্যদের কর্মোদ্দীপনা বৃদ্ধিতে সব পুলিশ সদস্যদের অনুকূলে ভাতা প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অর্থ বিভাগের প্রতি অনুরোধ জানানো হয় চিঠিতে।

একইসঙ্গে চিঠিতে পর পর দুই বছর এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ এবং তৃতীয় বছরে এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থসহ ১৫ দিনের শ্রান্তি বিনোদন ছুটি- চাকরিকাল ধরে ধারাবাহিকভাবে এভাবে ভাতা ও ছুটি দেয়ার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।