মেনন

বাংলাদেশী হত্যা করে ভারত লাশ ফেরত দেয় না, অথচ নেপালে একই কাজ করে ক্ষমা চায়: মেনন

ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, বিএসএফ সীমান্ত হত্যা বন্ধের প্রতিশ্রুতি দিলেও গত সাত দিনে তিনজন বাংলাদেশীকে হত্যা করেছে। যার দুইজনের লাশ এখনো দেয়া হয়নি।

অথচ নেপালে মাত্র একটি সীমান্ত হত্যাকাণ্ডের কারণে ভারত মাফ চেয়েছে। আমাদের সাথে ভারতের সীমান্ত হত্যা নিয়ে এ ধরনের আচরণ দুঃখজনক। সীমান্ত হত্যার ব্যাপারে সুষ্ঠু সমাধান করতে হবে। ভারত এ ব্যাপারে যে প্রতিশ্রতি দিয়েছে তা দ্রুত রক্ষা করতে হবে।

গতকাল শনিবার রংপুর পাবলিক লাইবের্রি মাঠে বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা সভাপতি নজরুল ইসলাম হক্কানীর সভাপতিত্বে এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, পলিটব্যুরো সদস্য মাহমুদুল হাসান মানিক, আমিনুল ইসলাম গোলাপ, কেন্দ্রীয় সদস্য মোছাদ্দেক হোসেন লাবু, তপন কুমার রায়, রুহুল আলম, অশোক সরকার প্রমুখ।

বিএনপিকে ডিসিসি নির্বাচন থেকে পালিয়ে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে মেনন বলেন নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে কি হবে না তা নির্ভর করবে যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন তাদের আচরণের ওপর।

তিস্তা নিয়ে মানুষ আর কতকাল অপেক্ষা করবে। পশ্চিমবঙ্গের অন্য সব বিষয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার হস্তক্ষেপ করলেও তিস্তার বেলায় নয় কেন? ভারতের নাগরিকত্ব বিল বিষয়ে সব দল ও মানুষের মতামত উপেক্ষা করে কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নিতে পারলে, তিস্তার চুক্তি সই প্রশ্নে কেন পশ্চিমবঙ্গের ওপর চাপিয়ে দেয়া হবে।

তাই স্পষ্ট কথা উত্তরাঞ্চলের জীবন রেখা তিস্তা বাঁচাতে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকেই এই চুক্তি সম্পাদন করতে হবে। এ সময় রংপুর বিভাগের আট জেলার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে গণসঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে সমাবেশের কার্যক্রম শুরু হয়।