ধর্ম অবমাননাকারী পাকিস্তানী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের মৃত্যুদণ্ড

পাকিস্তানে বিতর্কিত ধর্ম অবমাননা নিরোধ আইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রভাষকের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। গতকাল মুলতান প্রদেশের একটি আদালত এ রায় দেন। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালসহ বিভিন্ন মানবাধিকার গোষ্ঠী এ রায়ের প্রতিবাদ জানিয়েছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জুনাইদ হাফিজ (৩৩) মুলতানের বাহাউদ্দীন জাকারিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি সাহিত্যের প্রভাষক ছিলেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি করার দায়ে ২০১৩ সালে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মুলতানের একটি কারাগারে বিচারকাজ চলছিল। গতকাল রায় দেওয়ার সময় ওই কারাগারের ভেতরে-বাইরে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়। মৃত্যুদণ্ডের রায়ের পর সরকারি আইনজীবীরা ‘আল্লাহু আকবার’ ও ‘ধর্ম অবমাননাকারীদের মৃত্যু হোক’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন। এ সময় তাঁদের নিজেদের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করতে দেখা যায়।

এদিকে জুনাইদের কৌঁসুলি আসাদ জামাল এ রায়কে ‘চরম দুর্ভাগ্যজনক’ অভিহিত করে বলেছেন, এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলছে, জুনাইদের মৃত্যুদণ্ডের রায় ন্যায়বিচারের ক্ষেত্রে আদালতের লজ্জাজনক ব্যর্থতা। সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক গবেষক রাবিয়া মেহমুদ রায়কে ‘অত্যন্ত আশ্চর্যজনক ও হতাশাজনক’ বলে অভিহিত করে বলেছেন, ‘সরকারের উচিত সব অভিযোগ তুলে নিয়ে দ্রুত জুনাইদের মুক্তির ব্যবস্থা করা।’

সূত্র : এএফপি।