গ্রেফতার

সাড়ে ১২ কোটি টাকা আত্মসাৎ মামলায় ব্যাংক কর্মকর্তাসহ আটক ৩

জালিয়াতির মাধ্যমে গ্রাহকের টাকা স্থানান্তর ও উত্তোলন করে ইস্টার্ন ব্যাংকের ১২ কোটি ৫৪ লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় করা মামলায় ব্যাংকটির সাবেক এক কর্মকর্তাসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে দুদক।

গ্রেপ্তারদের মধ্যে সামিউল সাহেদ চৌধুরী ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের চান্দগাঁও শাখার সাবেক প্রায়োরিটি ব্যাংকিং ম্যানেজার। অপর দুজন হলেন- সাউথ খুলশি আবাসিক এলাকার মাহমুদুল হাসান (৩২) এবং পূর্ব মাদারবাড়ির আব্দুল মাবুদ (৩৪)।

ধবার নগরীর আগ্রাবাদ এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে দুদক জেলা কার্যালয়-১ এর উপ-পরিচালক লুৎফুল কবির চন্দন জানান।
তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, এর আগে এই মামলায় ইস্টার্ন ব্যাংকের চান্দগাঁও শাখার সাবেক প্রায়োরিটি ব্যাংকি ম্যানেজার মো. ইফতেখারুল কবীরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিলে। এ নিয়ে এ মামলায় মোট চারজনকে গ্রেপ্তার করা হল।

এ ঘটনায় গত ১৪ অক্টোবর দুদকের পাঁচ কর্মকর্তা বাদী হয়ে আট জনকে আসামি করে মোট ১১টি মামলা করেন।

১২ কোটি ৫৪ লাখ ১৫ হাজার ৪৩৩ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় পারস্পরিক যোগসাজশে জালিয়াতি, প্রতারণা, মিথ্যা নথি তৈরি, গ্রাহক ও ব্যাংককে মিথ্যা হিসাব বিবরণী দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়।

ওই মামলায় আসামিরা হলেন- ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের চান্দগাঁও শাখার সাবেক দুই কর্মকর্তা মো. ইফতেখারুল কবীর ও সামিউল সাহেদ চৌধুরী, লাবিবা বুটিকসের মালিক ফারজানা হোসেন ফেন্সী, জাকির হোসেন বাপ্পী, আজম চৌধুরী, মাহমুদুল হাসান, আব্দুল মাবুদ ও খালেদ সাইফুল্লাহ।

বুধবারের অভিযানে নেতৃত্ব দেন দুদক এর উপ সহকারী পরিচালক হোসাইন শরীফ, নুরুল ইসলাম ও মাহমুদা আক্তার।