নিজের ফ্ল্যাট গোপন রেখে প্লট চেয়েছেন রুমিন

সরকার ও বর্তমান সংসদকে বারবার অবৈধ বলে দাবি করে আলোচনায় আসা বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানার নামে ঢাকায় ফ্ল্যাট থাকলেও তা গোপন করে সরকারের কাছে ১০ কাঠার প্লট দাবি করেছেন।

রাজধানীর পূর্বাচলে ১০ কাঠার প্লট চেয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমকে দেয়া চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, ‘ঢাকা শহরে আমার কোনো জায়গা/ফ্ল্যাট/জমি নাই। ওকালতি ছাড়া আমার অন্য আর কোনো ব্যবসা বা পেশা নাই। এ জন্য ঢাকাস্থ পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠা প্লটের প্রয়োজন।’

অথচ নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া হলফনামা থেকে জানা গেছে, রাজধানীর নিউ এলিফ্যান্ট রোডে তার একটি ফ্ল্যাট রয়েছে। সেটাকে তিনি স্থায়ী ঠিকানা হিসেবেও হলফনামায় লিখেছেন। তিনি হলফনামায় আরও লিখেছেন, আনুমানিক ১৮৫০ বর্গফুটের সেই ফ্ল্যাটটি তিনি তার মায়ের কাছ থেকে পেয়েছেন।

প্লট চাওয়ার তার সেই চিঠিটি ইতোমধ্যে ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। চলতি মাসের ৩ তারিখ চিঠিটি তিনি দিয়েছেন। চিঠিতে তিনি আরও উল্লেখ করেন, ‘আমার নামে ১০ কাঠার প্লট বরাদ্দ করলে আমি আপনার কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকব’। এ বিষয়ে জানতে চিঠিতে উল্লেখ করা রুমিনের নম্বরে একাধিকবার ফোন দিলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

অনেক নাটকীয়তার পর বিএনপির এমপিরা শপথ নেয়ার পর সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসেবে মনোনয়ন পান রুমিন। এরও আগে টেলিভিশন টকশোর পরিচিত মুখ ব্যারিস্টার রুমিন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন চেয়ে আলোচনায় আসেন।

তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসন থেকে মনোনয়ন চান। তবে এই আসনে উকিল আবদুস সাত্তারকে মনোনয়ন দেয় বিএনপি। নিজ এলাকার মানুষের কাছে তেমন পরিচিতি না থাকলেও কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে রুমিন ফারহানার পরিচিতি রয়েছে।

এমপি হিসেবে শপথ নিয়েই সেই সংসদকে অবৈধ বলে দাবি করায় আবার আলোচনায় আসেন তিনি। সংসদে বক্তব্য দিতে গিয়ে চলমান সংসদকে অবৈধ বলা ছাড়াও সরকারের সমালোচনায় মুখর এই এমপি। এছাড়া দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়েও একাধিকার বক্তব্য রেখেছেন তিনি।