প্রতারকের খপ্পরে অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী

বিভিন্ন সময় বহু বিকাশ গ্রাহকরা অভিযোগ করেন তারা প্রতারণার শিকার হন। এখন হরহামেশাই শোনা যাচ্ছে মানুষ প্রতারণার শিকার হচ্ছে। এতে নানা অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটছে।

এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। তিনি এক বিকাশ প্রতারকের খপ্পরে পড়েছেন।

ওই প্রতারক চঞ্চল চৌধুরীকে ফোন দিয়ে তার বিকাশ অ্যাকাউন্ট ভেরিফায়েড করার কথা বলেন। তবে চঞ্চল চৌধুরীও কম না। তিনি সেই প্রতারক সদস্যকে কথার জালে ফাঁসিয়ে দিয়েছেন। এমনই একটি ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ব্যাপকভাবে।

তবে চঞ্চল চৌধুরী জানিয়েছেন সেই রেকর্ডটিও তার নয়। তিনি জানান, এটা তার কণ্ঠ নয়। কেউ চঞ্চল চৌধুরীর কণ্ঠ নকল করে এমনটা করেছেন। তবে এত নিখুঁত কথোপকথন যে, সেটা চঞ্চলের নয়, তা ভাবতেও পারবেন না।

এ বিষয়ে অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, ‘আমি কিছুদিন আগে বিকাশ প্রতারকের খপ্পরে পড়েছিলাম। কিন্তু ওই প্রতারকের সঙ্গে আমার বেশি কথা হয়নি। আমি সাধারণত আমার অ্যাকাউন্টে খুব বেশি টাকা রাখি না। সর্বোচ্চ এক হাজার টাকা থাকে, যা দিয়ে আমি ইন্টারনেট প্যাকেজ কেনা ও মোবাইল রিচার্জ করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘তবে ওই পুরো কথোপকথনটি আমি শুনেছি। একদম আমার মতো করেই কথোপকথন চালানো হয়েছে। কিন্তু সেই কণ্ঠ আমার নয়। বিষয়টি নেতিবাচক না। তবে হ্যাঁ, আমি বিষয়টি নিয়ে শঙ্কিত। আজ যদি এই কণ্ঠটা ব্যবহার করে কোনো নেতিবাচক সংলাপ প্রকাশ করা হতো তাহলে তো সবাই বিশ্বাস করে বসতো। আমি খুব ব্যস্ত সময় অতিক্রম করছি। বিষয়টি নিয়ে আমি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সঙ্গে কথা বলব।’