চীনে ভয়াবহ বন্যায় নিহত ৬১

ভারী বৃষ্টিপাত ও ভয়াবহ বন্যায় চীনের দক্ষিণ ও পশ্চিম অঞ্চলে কমপক্ষে ৬১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এতে ঘরছাড়া হয়েছে আরও সাড়ে ৩ লাখের বেশি মানুষ। তাদেরকে পাশ্ববর্তী নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে দেশটির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সোমবার (১০ জুন) থেকে শুরু হওয়া এ বৃষ্টিতে ভেসে গেছে কোটি কোটি একর জমির ফসল।

দেশটির উদ্ধারকারী ও জরুরি ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত ৯ হাজার ৩০০ বাড়ি ধসে পড়েছে এবং ৩৭ কোটি ১০ লাখ হেক্টর আবাদি জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আর প্রত্যক্ষ আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ১৯৩ কোটি ডলার।

এদিকে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গুয়াংজু প্রদেশ থেকে দেশটি দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলীয় চংকিংয়ের ইয়াংতজ নদী পর্যন্ত এই বন্যার বিস্তৃতি। বন্যা পরিস্থিতি থেকে এখন পর্যন্ত ৪ হাজার ৩০০ জনেরও বেশি মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রণালয়।

চীনের উত্তরাঞ্চল গ্রীষ্মকালে খরার কবলে পড়ে এবং সেই সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলে এসময় বন্যা দেখা দেয়।

এদিকে চায়না ডেইলি জানিয়েছে, উত্তরাঞ্চলে অতীতের তুলনায় বৃষ্টিপাত এবার আরও কম হবে। ইয়েলো নদীর অববাহিকায় বাড়বে বন্যার ঝুঁকি।

এছাড়া নতুন করে গুয়াংডং, ফুজিয়ান, ইয়ুনান, সিচুয়ান ও তাইওয়ান প্রদেশে প্রবল বৃষ্টির আভাস দিয়েছে দেশটির আবহাওয়া। সূত্র: রয়টার্স