টনটনের ছোট মাঠ নিয়ে মাশরাফির দুশ্চিন্তা

দুই ম্যাচ হারের পর শ্রীলংকার বিপক্ষের বাংলাদেশের ম্যাচটিও পরিত্যক্ত হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়। এতে তুলনামূলক বেশি ক্ষতি হয়েছে বাংলাদেশের। এমন্তাবস্থায় শেষ চারে ওঠা নিয়ে কিছুটা দুঃচিন্তায় রয়েছে টাইগাররা।

এদিকে আবার নতুন চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে টনটন কাউন্টি গ্যাউন্ড। মাঠটি অন্য মাঠের তুলনায় কিছুটা ছোট হওয়ায় সুবিধা করতে পারবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা। আগামী ১৭ জুন (সোমবার) বাংলাদেশ – ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। ছোট মাঠে সহজেই চার-ছয়ের দেখা পাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মারকুটে ব্যাটসম্যানরা।

সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে কথা বলেন টাইগার দলপতি মাশরাফি। তাঁর মতে এই ম্যাচে বাড়তি সুবিধা পাবে হার্ডহিটাররা। মাশরাফি যোগ বলেন, টনটন খুব ছোট মাঠ। আর সেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলা সহজ হবে না। কিন্তু কঠিন লড়াই করার বিকল্প নেই আমাদের হাতে।

এদিকে চলতি বিশ্বকাপে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সাকিব আল হাসান ভুগছেন ঊরুর ইনজুরিতে। উইন্ডিজ ম্যাচের আগে সাকিবের খেলা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। সাকিব দলে থাকলে বাড়তি সুবিধা পায় বাংলাদেশ। সাকিব স্ট্রোক খেলতে পছন্দ করেন। এই ভেন্যুতে বাড়তি সুবিধা পেতেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। মাশরাফি মনে করছেন সাকিবের খেলা নিয়ে যে শঙ্কা সেটি উইন্ডিজ ম্যাচের আগে দূর হয়ে যাবে।

আমি মনে করি এর মধ্যেই সাকিব সুস্থ হয়ে উঠবে। সেরে উঠতে এখনও হাতে চার থেকে পাঁচ দিন আছে-যোগ করেন মাশরাফি।