আপাতত বিপদমুক্ত এটি এম শামসুজ্জামান

বর্ষীয়ান অভিনেতা এটি এম শামসুজ্জামান এখন অনেকটা শংকামুক্ত। তিনি এখনও পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়া এলাকার আজগর আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আজ শনিবার সকালে হঠাৎ শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাকে আজ দুপুরে আবারও হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়। তবে তিনি শংকামুক্ত রয়েছেন বলেই জানান হাসপাতালের ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ ডা. মো. মতিউল ইসলাম।

তবে এখন তিনি শঙ্কামুক্ত। চিকিৎসকদের কাছ থেকে জানা গেছে, বাসায় যাওয়ার পরও দীর্ঘদিন এই বর্ষীয়ান অভিনেতাকে চিকিৎসার আওতায় থাকতে হবে। তখনো চিকিৎসক সরাসরি তাঁকে পর্যবেক্ষণ করবেন। স্বাভাবিক জীবনে ফেরার জন্য তাঁকে আরও অনেক দিন অপেক্ষা করতে হবে।

ডা. মো. মতিউল ইসলাম বলেন, ‘সকালে হঠাৎ করে শ্বাসকষ্ট শুরু হলে এ টি এম শামসুজ্জামানকে আইসিউতে নেওয়া হয়। তবে দুশ্চিন্তার কোন কারণ নেই। কোনো ঝুঁকি নেই। তবে এ ধরনের রোগীর যেকোনো সময় অবস্থার পরিবর্তন ঘটতে পারে। যেকোনো কিছু হতে পারে।’

তিনি আরও বলেন, তিনি এখন বিপদমুক্ত। তাঁকে বাসায় নেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। তবে বাসায় নিলেও নিয়মিতই চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে থাকতে হবে। এ ক্ষেত্রে বাসায় তাঁকে দেখাশোনার জন্য হাসপাতাল থেকে একাধিক সার্বক্ষণিক নার্স রাখার কথা ভাবা হচ্ছে। পাশাপাশি হাসপাতাল থেকে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক তাঁকে বাসায় গিয়ে পর্যবেক্ষণ করবেন।

গত ২৬ এপ্রিল রাতে এ টি এম শামসুজ্জামান হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে। শ্বাস কষ্টের সমস্যা হলে রাত ১১টার দিকে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অস্ত্রোপচার করা হয়। এরপর কিছুদিন পর তাকে তাঁকে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়।