নিজের আসনেও হেরে গেলেন রাহুল

মোদির বিজেপির কাছে বিশাল ব্যবধানে হেরেছে ভারতের সবচেয়ে প্রাচীন দল কংগ্রেস। তবে শুধু কংগ্রেস নয় গত অর্ধ শতাব্দী ধরে যে আসনটি গান্ধী পরিবারের দখলে এবার সেই আসনে পরাজিত হয়েছেন দলটির সভাপতি রাহুল গান্ধী।

নেহেরু-গান্ধী পরিবারের রাজনৈতিক ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত উত্তরপ্রদেশের আমেথি আসনে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে পেছনে ফেলেছেন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি জয় পেয়েছেন।

রাহুলের বাবা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী ওই আসন থেকে জিতেই ক্ষমতায় বসেছিলেন। এবার পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া সেই আসন হারালেন রাহুল। রাহুল মোট ভোট পেয়েছেন ৩ লাখ ৩১ হাজার ৩০৫টি। স্মৃতি ইরানি পেয়েছেন ৩ লাখ ৭৮ হাজার ৮৬৩টি ভোট।

২০০৪ সাল থেকে এই আসনে নির্বাচিত হয়ে কংগ্রেস সভাপতি লোকসভায় প্রতিনিধিত্ব করছেন। কিন্তু এবার পৈতৃক এই আসনে হারার পর মনে করা হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার নামকরা নেহেরু-গান্ধী পরিবার এবার কী তাহলে পরিবারটি তাদের রাজনৈতিক একচ্ছত্র আধিপত্র হারাতে বসেছে?

তবে গান্ধী পরিবারের আরেক ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত উত্তরপ্রদশের রায়বেরিলি আসন থেকে জয় পেয়েছেন রাহুল গান্ধীর মা ও কংগ্রেস জোট ইউাইটেড প্রগ্রেসিভ অ্যালায়েন্স (ইউপিএ) চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধী। ওই আসনটির সঙ্গে গান্ধী পরিবারের সম্পর্ক হলো শীতের সঙ্গে লেপের মতো।

বিরোধীরা অবশ্য অন্যরকম কথা বলছেন। ভারতজুড়ে নির্বাচনী প্রচারণায় চষে বেড়ালেও আমেথিকে রাহুল গান্ধী তেমন গুরুত্ব দেননি বলে অভিযোগ বিজেপির। দেশটির ক্ষমতাসীন এই দল বলছে, রাহুল গান্ধী আমেথি আসনকে অবহেলা করেছে।