শোভনের পাশে কে এই মেয়ে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল

সোমবার বিকালে ছাত্রলীগের ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হয়। সংগঠনটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন জানান, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুমোদনের পর ৩০১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সহসভাপতি হয়েছেন ৬১ জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন ১১ জন, সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ পেয়েছেন ১১ জন। এছাড়া বিষয়ভিত্তিক সব সম্পাদক এবং সহ সম্পাদক ও উপসম্পাদকের নামও ঘোষণা করা হয়।

এদিকে, কেন্দ্রীয় ওই কমিটিতে পদ পাওয়া না পাওয়া নিয়ে চলছে উত্তেজনা ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ। ইতিমধ্যে ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে ঢাবিতে দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় ডাকসুর তিন নেতাসহ অন্তত ১৫জন আহত হয়েছেন। পদবঞ্চিতদের বিভিন্ন অভিযোগকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি থেকে সোশ্যাল মিডিয়া, যার রেশ পড়ে গণমাধ্যমেও।

এর মধ্যে সবচেয়ে যে বিষয়টি নিয়ে বেশী বিতর্কের সৃষ্টি হয় সেটি হলো ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জারিন দিয়ার ফেসবুক স্টাটাস। তিনি সহ ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে বিবাহিত দাবি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার মত ছাত্রলীগের পদ বঞ্চিত কয়েকজন স্ট্যাটাস দেয়।

শোভনের সাথে একজন মেয়ের একটি ছবিও ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়ে যায়। ফেসবুকে সেই ছবি শেয়ার করে দাবি করা হয়, ছাত্রলীগ সভাপতি বিবাহিত এবং মেয়েটি ছাত্রলীগ সভাপতির স্ত্রী।

জারিন দিয়া লিখেন ‘রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ভাই, আপনারা যেসব মেয়েদের কমিটিতে রেখেছেন, তারা কয়দিন থেকে রাজনীতি করে? নিজে বিবাহিত বলে কমিটিতে দুনিয়ার বিবাহিত মেয়েদের রেখেছেন। অনেক তথ্য অপেক্ষা করছে আপনাদের জন্যে। এই বিবাহিত বিতর্কিত কমিটি মানি না, মানবো না। আমার শ্রমের মূল্য দিতে হবে আপনাদের।’

তবে এই ছবির ব্যাপারে মুখ খুলেছেন ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। আজ মঙ্গলবার (১৪ মে) দুপুরে তার সাথে মুঠোফোনে ছবিটির ব্যাপারে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ছবিটিতে আমার পাশে যে মেয়েকে দেখা যাচ্ছে উনি আমার প্রেমিকা, আমার স্ত্রী নন। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ছাত্রলীগ করলে কি প্রেম করা যাবে না? ছাত্রলীগ করলে তো প্রেম করা নিষেধ নাই!