লতিফ সিদ্দিকী কুলাঙ্গার তাকে ফাঁসি দিতে হবে: এরশাদ

স্টাফ রিপোর্টার: মহানবী (সাঃ) ও হজ্ব নিয়ে মন্তব্য করায় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর ফাঁসির দাবি জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি বলেন, কুলাঙ্গার লতিফ সিদ্দিকীকে গ্রেফতার করুন। তিনি মুসলমান নন, মুরতাদ। তাকে ফাঁসির মাধ্যমে বিচার করতে হবে।

গতকাল বুধবার কাকরাইলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্যের প্রতিবাদে ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ দাবি জানান। জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপির সভাপতিত্বে এ বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তৃতা করেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু এমপি, পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও পানিসম্পদ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, এম এ হান্নান এমপি, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রেজাউল ইসলাম ভূইয়া প্রমুখ।

এরশাদ বলেন, দল থেকে বহিষ্কার করে দলকে কলঙ্কমুক্ত করুন। তিনি এমন বক্তব্য দিয়ে সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন। সংসদে বক্তব্য দেয়ার অধিকার হারিয়েছেন। তার সাথে একই সংসদে আমরা বসতে পারি না। তাকে সংসদ থেকেও বহিষ্কার করতে হবে। তিনি বলেন, একটি মানুষের কারণে পুরোবিশ্বে বাংলাদেশের সুনাম ভূলুণ্ঠিত হয়েছে।

কোনো দলের নাম উল্লেখ না করে এরশাদ বলেন, একটি দল নিজেদের মুসলমানের দল বলে দাবি করে। কিন্তু লতিফ সিদ্দিকীর এমন বক্তব্যের পর দলটির প্রতিক্রিয়া দিতে পারেনি। আমরা প্রতিক্রিয়া দিয়েছি। রাজপথে নেমেছি। এ সময় এরশাদ তার মেয়াদে ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম ঘোষণা করার কথা মনে করিয়ে দিয়ে বলেন, লতিফ সিদ্দিকীর শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত রাজপথ ছাড়বো না। জাতীয় পার্টি প্রকৃত মুসলমানের দল।